জামালপুরে সাবেক স্বামীর ছুরির আঘাতে স্ত্রী খুনসহ ও দুই অপমৃত্যুর ঘটনা।

Date: 2024-06-19
news-banner

বার্তা বিচিত্রা সর্বশেষ সংবাদ পেতে Google news অনুসরণের জন্য ক্লিক করুন



হাফিজুর রহমান 
জামালপুর জেলা প্রতিনিধি :

জামালপুর 
জেলার সরিষাবাড়ি উপজেলার ভাটারা ও মহাদান ইউনিয়নে স্বামীর ছুরির আঘাতে স্ত্রীসহ আরও দুই নারীর অপমৃত্যুর খবর 
পাওয়াগেছে।ঘটনাটি বুধবার দিবাগত রাতে ঘটেছে।

পুলিশ সুত্র জানায়,দিনাজপুর জেলার রাজধানী মোড় এলাকার 
রিপন মিয়ার পুত্র সরল মিয়া(৩৬)জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ির উপজেলার ভাটারা ইউনিয়নের মহিষা ভাদুরিয়া গ্রামের 
কাশেম মিয়ার কণ্যা সাথী কাঞ্চন (৩৫)এর সঙ্গে বিবাহ হয়।পরে তাদের মধ্যে বনিবনাত নাহলে দুই বছর আগে এদের 
তালাক হয়।পরে সেই তালাক প্রাপ্তা স্বামী সরল আবারও ওই সাবেক স্ত্রী কাঞ্চন সাথীকে বিবাহের জন্য চেষ্টা করলে কাঞ্চন 
তা নাকচ করে।পরে ঈদুল আজহার আগের রাতে সরল মিয়া সেই ক্ষোভে কাঞ্চন সাথীর বাড়ির সামনে তাকে একা পেয়ে 
পেটের ভেতর ছুরি দিয়ে আঘাত করে।

পরে তার ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা কাঞ্চনকে উদ্ধার প্রথমে জামালপুর জেনারেল 
হাসপাতালে পরে ঢাকা বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার দিবাগত 
রাতে সে মারা যায়।অপর দিকে উপজেলার একই ইউনিয়নের ভেবলা গ্রামের আব্দুল খালেকের কণ্যা সৌদি প্রবাসী 
মাসুদ মিয়ার স্ত্রী সুমী বেগম(২৩) নিজ বসত ঘরের ফ্যানের সঙ্গ গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাঁস নিয়ে গেল রাতে 
রহস্যজনক মৃত্যু হয় তার।অপর দিকে উপজেলার মহাদান ইউনিয়নে খাকুরিয়া এলাকার লাভলু মিয়ার মাদ্রাসা পড়ুয়া 
শিক্ষার্থী লাহাব(১৫) নিজ ঘরের ধর্ণার সঙ্গে ফাঁস নিয়ে মৃত্যু হয়। 

এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি)মুশফিকুর রহমান বলেন,কাঞ্চন সাথী হত্যার দায়ে তার 
সাবেক স্বামী সরল মিয়ার বিরুদ্ধে ৩২৬ ধারায় মামলা,মাদ্রাসা শিক্ষার্থী লাহাব মিয়া অপমৃত্যুর ঘটনায় ইউডি মামলা ও সুমী বেগমের লাশ ময়না তদন্তের জন্য জামালপুর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave Your Comments